অন্য ভাষায় :
সোমবার, ০৪:৩২ অপরাহ্ন, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
মানব সেবায় নিয়োজিত অলাভজনক সেবা প্রদানকারী সংবাদ তথ্য প্রতিষ্ঠান।

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী হৃদয়দের চোখ বড়দের বিশ্বকাপে

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৯ নভেম্বর, ২০২১
  • ১১৪ বার পঠিত

ক্রিকেটে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অর্জন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের শিরোপা। ২০২০ সালে ভারতকে কাঁদিয়ে বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছিল খুদে টাইগাররা। এবার তাদের চোখ বড়দের বিশ্বকাপের দিকে। বয়সভিত্তিক বিশ্বকাপ জয়ের পর তারা বুঝে গেছে কীভাবে বিশ্বকাপ জিততে হয়। তার সেই প্রেরণাকে সঙ্গী করে জাতীয় দলের হয়ে সবচেয়ে মর্যাদার শিরোপাও জেতার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার তৌহিদ হৃদয়।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসরে বাংলাদেশ দলের ভরাডুবির পর বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারকে এই ফরম্যাট থেকে সরিয়ে নিতে চাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে আরও একটি বিশ্বকাপ, তাইতো এক বছর বাকি থাকতেই সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে চাচ্ছে বিসিবি। তারই অংশ হিসেবে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ীদের বেশ কয়েকজনকে প্রস্তুত করতে যাচ্ছে দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

বিশ্বকাপ শেষে বাংলাদেশ সফরে আসবে পাকিস্তান দল। ওই সফরে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে তারা। তাইতো পাকিস্তানের সঙ্গে লড়াই দিয়ে নতুন শুরু বার্তা দিতে চায় বিসিবি। সেই লক্ষ্যে সাত ক্রিকেটারকে তৈরির কাজ শুরু করে দিয়েছে বোর্ড। তাদের মধ্যে আছেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী পারভেজ হোসেন ইমন, তৌহিদ হৃদয়রা।

মঙ্গলবার দুপুরে মিরপুর শের-ই বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুশীলনের ফাঁকে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন হৃদয়। তিনি বলেন, ‘আমরা যতদিন ক্রিকেট খেলবো, ততদিন এটা আমাদের কনফিডেন্স দেবে। একটা বিশ্বকাপ জয় হয়েছে। আমরা প্রত্যেক খেলোয়াড় ব্যক্তিগতভাবে অনুভব করি যে কীভাবে বিশ্বকাপ জিততে হয়, সেই সঙ্গে আমাদের কনফিডেন্স আছে। ইনশাআল্লাহ বড়দের বিশ্বকাপ যেটা আছে সেটাও জিততে সক্ষম হব।’

জাতীয় দলের ব্যর্থতার সময় দলে ডাক পাওয়ায় দায়িত্বটা বড় হয়ে গেল কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটা আমার জন্য বড় একটা সুযোগ। ভালো খারাপ হতেই পারে, আমরা আরও ভালোভাবে ওভারকাম করবো ইনশাআল্লাহ। যেই সুযোগটা পেয়েছি সেটা কাজে লাগাবো। হতে পারে অনুশীলন, হতে পারে সবকিছুই। সিনিয়র ভাইয়েরা আছেন তাদের থেকে অনেক কিছু শেখার আছে।’

জাতীয় দলের ডাক পাওয়ার জন্য সব ধরনের প্রস্তুতির কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য নিজেদের সেরাটা দিয়ে জাতীয় দলে ঢোকা, জাতীয় দলের গিয়েও নিজের সেরাটা দেয়া। এটা অনেকের ক্ষেত্রে হবে, অনেকের ক্ষেত্রে হবে না। মানুষ চেষ্টা করলে সবই সম্ভব। ইনশাআল্লাহ আমরা আমাদের সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করবো।’

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2021 SomoyerKonthodhoni
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com