অন্য ভাষায় :
সোমবার, ০৪:৪৬ অপরাহ্ন, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
মানব সেবায় নিয়োজিত অলাভজনক সেবা প্রদানকারী সংবাদ তথ্য প্রতিষ্ঠান।

আবেদন-নিবেদন নয়, বেগম জিয়ার সুচিকিৎসা নিশ্চিতে কর্মসূচি দিন : এলডিপি

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২১
  • ৮৭ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আবেদন-নিবেদন নয়, খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা নিশ্চিতে কর্মসূচি দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের শরিক, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপির একাংশের সভাপতি আবদুল করিম আব্বাসী ও মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম। আজ বৃহস্পতিবার সকালে গণমাধ্যমে পাঠানো দপ্তর সম্পাদক শামীম আহাম্মদ স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে তারা এই আহ্বান জানান।

খালেদা জিয়া গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে নিজেকে উৎসর্গ করেছেন উল্লেখ করে তারা বলেন, ‘তিনি শুধু তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রীই নন, সেই সঙ্গে তিনি স্বাধীনতার মহান ঘোষক, বীর মুক্তিযোদ্ধা, সাবেক রাষ্ট্রপতি শহীদ জিয়াউর রহমান বীর উত্তমের সহধর্মিণী। তিনি দীর্ঘদিন ধরে নানাবিধ জটিল রোগে আক্রান্ত। এক ফরমায়েশি রায়ে তাকে কারাবন্দি রেখে তার চিকিৎসায় করা হয়েছে চরম অবহেলা।’

তারা আরও বলেন, ‘আজ সংবাদপত্রগুলোতে পরিষ্কার করে এসেছে, খালেদা জিয়া নানা রোগে আক্রান্ত। অবিলম্বে তার উন্নত চিকিৎসাকেন্দ্রে চিকিৎসা প্রয়োজন। যেসব রোগের সুচিকিৎসা চিকিৎসক ডেকে নিয়ে করা সম্ভব না। একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে যেভাবে সুচিকিৎসা বঞ্চিত করা হচ্ছে, দেশের জনগণ নীরবে তা সহ্য করবে না। তার সঙ্গে সরকারের বিরূপ অমানবিক আচরণের জবাব মানুষ কঠোরভাবে দেবে।’

২০ দলীয় জোটের প্রধান নেতৃত্বাদানকারী বিএনপির প্রতি আহ্বান জানিয়ে এলডিপির দুই শীর্ষ নেতা বলেন, ‘মহান সৃষ্টিকর্তার কাছে দেশবাসী প্রার্থনা করছেন। প্রার্থনা করছেন লাখ-লাখ অনুসারী, নেতাকর্মী। সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বিএনপিকে আরও কার্যকর, শক্তিশালী ভূমিকা গ্রহণ করতে হবে। আবেদন-নিবেদন নয়, কঠোর কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বেগম জিয়াকে শোষকের কারাগার থেকে মুক্ত করার সংগ্রাম শুরু করুন। বেগম জিয়াকে আমরা ধুঁকে-ধুঁকে মরতে দেবো না। তিনি আবার বাংলাদেশের পথদিশারী হয়ে এদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের নেতৃত্ব দেবেন, বলে প্রত্যাশা করি।’

সরকারের উদ্দেশে বিবৃতিতে আরও বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বুধবার সংবাদ সম্মেলনে প্রদত্ত বক্তব্য শুনে দেশবাসীর মনে হয়েছে, এই দেশে কোনদিন শান্তি ও শৃঙ্খলা দেখতে চান না। তিনি জনগণকে এখনো বিভাজনের দিকেই ঠেলে রাখতে চান। কিন্তু ইতিহাস স্বাক্ষ্য, বিভাজনের নীতি করে ব্রিটিশরা যেমন স্বাধীনতা রুখতে পারেনি, অন্যায্যতা করে যেমন পাকিস্তান পারেনি, তেমনি আওয়ামী লীগও পারবে না। বাংলাদেশের মানুষ জেগে উঠে এই বিভাজনের নীতি রুখে দেবে।’

বিবৃতিতে আবদুল করিম আব্বাসী ও শাহাদাত হোসেন সেলিম বলেন, ‘২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে নেওয়ার পর থেকে সুচিকিৎসার অভাবে ধুঁকে-ধুঁকে মরছেন বেগম জিয়া। গণতন্ত্রের বাতিঘরের এ সংগ্রাম কোনো দিন বৃথা যাবে না, বৃথা হওয়ার নয়।’

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2021 SomoyerKonthodhoni
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com