অন্য ভাষায় :
বৃহস্পতিবার, ১২:৩৩ অপরাহ্ন, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
মানব সেবায় নিয়োজিত অলাভজনক সেবা প্রদানকারী সংবাদ তথ্য প্রতিষ্ঠান।

স্বাগত ২০২২! নতুন বছরে অতীত থেকে শিক্ষা নেওয়া চাই

শামীম লাবু:
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১ জানুয়ারি, ২০২২
  • ১২৫ বার পঠিত

‘মুছে যাক গ্লানি ঘুচে যাক জরা/ অগ্নিস্নানে শুচি হোক ধরা/…বৎসরের আবর্জনা দূর হয়ে যাক’ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এভাবেই নতুন বছরকে স্বাগত জানিয়েছেন। আজ ১ জানুয়ারি। ঘড়ির কাঁটা ১২টা অতিক্রমের সাথে সাথে শুরু হয়েছে নতুন বর্ষ গণনা। কালের গর্ভে হারিয়ে গেলো আরো একটি বছর, বিদায় ইংরেজি ২০২১, স্বাগত ২০২২। হ্যাপি নিউ ইয়ার (শুভ নববর্ষ)।

নববর্ষের প্রথম দিন উদযাপন একটি সাধারণ প্রথা। এটা পালনে আমরা বিগত দিনের গ্লানি মুছে দেশ ও জাতির নতুন সম্ভাবনার স্বপ্ন দেখি। নতুন করে অতীতকে স্মরণ করে ভবিষ্যতের জন্য আশাবাদী হই। বিগত বছরের ভুলগুলো সংশোধন করে আলো জ্বালি নতুন প্রত্যাশার। আত্মসমালোচনা করে সংশোধিত নতুন দিনের পরিকল্পনা গ্রহণ করি।

নতুন বছরে আমাদের অতিপরিচিত অভিবাদন- হ্যাপি নিউইয়ার কিংবা শুভ নববর্ষ। নতুন বছরটি ভালো কাটুক, বছরের প্রতিটি দিন সুখ ও শান্তিতে ভরে ওঠুক, আমরা এমনটি চাই; নিজের জন্যেও চাই।

চাই অন্যের জন্যে, আত্মীয়-স্বজন, আপনজন, বন্ধু-বান্ধব এবং নির্বিশেষে সবার জন্যে। কিন্তু ‘বছরটি শুভ হোক’- এ জন্যে আমাদের প্রস্তুতি কতটুকু? প্রতিযোগিতামূখর এ পৃথিবীতে সবাই স্বীকার করবেন, জীবনে এগিয়ে যেতে হলে পেছনের ভুলত্রুটিগুলো চিহ্নিত করে সামনের দিনগুলোতে সেগুলো শুধরে নেওয়ার কোনো বিকল্প নেই।

অতীতের ভুল থেকে যদি কেউ শিক্ষা না নেয় তাহলে ব্যর্থতার গ্রাস থেকে মুক্তির কোনো পথ তার নেই। এ কথা একান্ত ব্যক্তিজীবনে যেমন সত্য, তেমনি সত্য ব্যক্তিজীবনের গণ্ডি পেরিয়ে পরিবার সমাজ ও রাষ্ট্রীয় পরিমণ্ডলেও।

মানুষ হিসেবে আমাদেরকে অন্যের সঙ্গে ওঠাবসা, কথাবার্তা, লেনদেনে আমাদের জড়াতেই হয়।যে কোনো ক্ষেত্রে কেউ আজ যদি একটি ভুল আচরণ করে বসে, কিন্তু পরে সে নিজেকে সংশোধন করে নেয় এবং ওই ভুলটি যেন আর না হয় সে বিষয়ে সতর্ক থাকে, তাহলে তার পরের দিনটি শুভ হবে, পরের বছরটি শুভ হবে। নিজ পরিবারে যেমন সে সকলের প্রিয় হয়ে থাকবে, তেমনি পরিবারের বাইরেও সে হবে ঈর্ষণীয় সহকর্মী ও বন্ধু প্রভৃতি।

‘পুরনো বছরের দুঃখ-দুর্দশার পরিবর্তে সুখ-শান্তিতে পূর্ণ হোক নতুন বছর,’ ‘বিগত বছরের ব্যর্থতাকে দূরে ঠেলে দিয়ে সামনের পানে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়’ ইত্যাদি।

বিদায়ি বছরটি ছিল এক কথায় প্রিয়জন হারানোর বছর। করোনা সংক্রমণে অথবা করোনাজনিত প্রভাবে অনেক বিশিষ্টজনকে হারিয়েছি আমরা। বাংলার সর্বস্তরের মানুষের জন্য শুভময় সফলতম বছর আসুক

আমরা সবাই প্যানডামিক(করোনা ভাইরাস) সিচুয়েশনের মধ্যে আছি। আমরা আশা করব, মানুষের অদম্য স্পৃহা ও উদ্ভাবনী শক্তির কাছে অচিরেই হার মানবে করোনাভাইরাস। পৃথিবীতে আবার ফিরে আসবে শান্তি। জনগণ, সরকার, রাজনৈতিক দল এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রের দায়িত্বশীল ব্যক্তিরা নতুন বছরটিকে শান্তি-সমৃদ্ধময় ও তাৎপর্যপূর্ণ করে তুলবেন। বাংলার সর্বস্তরের মানুষের জন্য শুভময় সফলতম বছর আসুক।সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা।

 

শামীম লাবু
০১-০১-২০২২ ইং

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2021 SomoyerKonthodhoni
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com