অন্য ভাষায় :
শুক্রবার, ০৯:২৫ অপরাহ্ন, ২১ জুন ২০২৪, ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
মানব সেবায় নিয়োজিত অলাভজনক সেবা প্রদানকারী সংবাদ তথ্য প্রতিষ্ঠান।

কেন করবেন ফেস ম্যাসাজ

সময়ের কণ্ঠধ্বনি ডেস্ক:
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২২ মে, ২০২৪
  • ১২ বার পঠিত

ত্বকের সঠিকভাবে যত্নআত্তিতে প্রয়োজন ফেস ম্যাসাজ। যা উজ্জ্বল এবং তারুণ্যোদীপ্ত ত্বক পেতে সাহায্য করবে। রূপ-রুটিনে এর অন্তর্ভুক্তি ত্বকে উল্লেখযোগ্য পার্থক্য এনে দেয়। মসৃণ মুখমণ্ডলের জন্য এটি অত্যন্ত কার্যকর। মুখত্বকে রক্ত সঞ্চালন বাড়ানো থেকে ত্বকের কোলাজেন উৎপাদন- সব ক্ষেত্রে কার্যকরী। ফেস ম্যাসাজে মাসল বা পেশির মাধ্যমে রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া ভালোভাবে কাজ করে। যা মুখের ফাইন লাইনস, রিঙ্কেলস, ডার্ক স্পট এবং পিগমেন্টেশন কমাতে সাহায্য করে। ফেস ম্যাসাজ ত্বককে পুনরুজ্জীবিত করে। বলিরেখা দূর করে, রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি এবং ত্বকের কোলাজেন উৎপাদন বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এমনকি ত্বকের যত্নের প্রসাধনগুলো শোষণে সাহায্য করতে পারে এবং এসব পণ্যের কার্যকারিতা বাড়ায়। তাই নিয়মিত ফেস ম্যাসাজে অনেক উপকার পাবেন। আপনার ত্বক হয়ে উঠবে আকর্ষণীয় ও কোমল।

রক্ত সঞ্চালন : নিয়মিত ফেস ম্যাসাজ ত্বকে রক্তপ্রবাহকে উদ্দীপিত করে, যা ত্বকের কোষে অক্সিজেন এবং পুষ্টি সরবরাহ করে। পাশাপাশি ত্বক থাকে পরিষ্কার। ত্বকে উজ্জ্বল আভা আনতে সাহায্য করে।

ত্বককে শিথিল করে : ফেসিয়াল ম্যাসাজের মৃদু চাপ এবং ছন্দময় নড়াচড়া মুখের পেশিগুলোকে শিথিল করে। ফলে ত্বকে আসে প্রশান্তি। এটি চাপ এবং উত্তেজনা কমাতেও সাহায্য করে। তাই রাতে ঘুমানোর আগে ম্যাসাজ করুন।

 

লিম্ফ্যাটিক সিস্টেম : ফেস ম্যাসাজ শরীর থেকে টক্সিন এবং বর্জ্য অপসারণে ভূমিকা পালন করে। এটি লসিকানালি নিষ্কাশনকে উদ্দীপিত করতে পারে, মুখের ফোলাভাব কমাতে পারে এবং ডিটক্সিফিকেশনে সহায়তা করে।

পেশিগুলোকে সুগঠিত করে : নিয়মিত ফেস ম্যাসাজ মুখের পেশিগুলোকে সুগঠিত এবং শক্ত করতে সাহায্য করে। যা মুখের আকৃতির উন্নয়ন ঘটায়। ত্বক ঝুলে যাওয়া বা ত্বকের সূক্ষ্মরেখা কমিয়ে দিতে পারে।

সূক্ষ্ম রেখা এবং বলিরেখা হ্রাস : ফেস ম্যাসাজ, বিশেষত যখন মুখত্বকে কোনো ময়েশ্চারাইজার বা ব্যবহারযোগ্য তেল দিয়ে ম্যাসাজ করা হয়, তখন কৌশলী এ ফেস ম্যাসাজ ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা উন্নত করে। সূক্ষ্ম রেখা এবং বলির উপস্থিতি কমাতে সাহায্য করে। এ ম্যাসাজিং প্রক্রিয়া ত্বকের কোলাজেন উৎপাদনকে উদ্দীপিত করতে পারে, যা আরও তরুণ এবং সুদর্শন চেহারায় অবদান রাখে।

স্কিনকেয়ার পণ্যগুলোর শোষণ : ফেস ম্যাসাজ ত্বকের স্কিনকেয়ার পণ্যগুলোর শোষণ বাড়াতে সাহায্য করে। মৃদু হাতের ম্যাসাজ ত্বকের রক্ত সঞ্চালন বাড়াতে সাহায্য করে। ফলে ত্বকের যত্নের পণ্যগুলো আরও কার্যকরভাবে ত্বকে প্রবেশ করে। পণ্যের উপকারী উপাদানগুলোকে ত্বকের গভীর স্তরগুলোতে পৌঁছে দেয়।

ত্বককে কোমল করে : সঠিক ধরনের ফেসিয়াল ম্যাসাজ ত্বকের গঠন উন্নত করতে সাহায্য করে। ত্বক নরম ও কোমল করে তোলে। এটি আপনার ডিহাইড্রেটেড এবং শুষ্ক ত্বককে ময়শ্চারাইজ করে। ত্বক থেকে বিষাক্ত পদার্থও দূর করে। ত্বকে তারুণ্যের আভা যোগ করে।

ব্রণ দূর করে : ফেসিয়াল ম্যাসাজ রক্ত সঞ্চালনে সাহায্য করে। যা ব্রণ দূর করে। তবে খুব জোরে ম্যাসাজ করবেন না। বিশেষ করে সংবেদনশীল জায়গাগুলোতে আস্তে আস্তে ম্যাসাজ করুন।

উন্নত ত্বকের টেক্সচার : ফেসিয়াল ম্যাসাজ ত্বকের কোষ গঠন করতে পারে। এর এক্সফোলিয়েশন ত্বকের গঠন উন্নত করতে সাহায্য করে। পাশাপাশি মৃত ত্বকের কোষগুলোকে অপসারণ করে। ফলে ত্বক মসৃণ এবং উজ্জ্বল বর্ণ প্রকাশ করতে পারে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2021 SomoyerKonthodhoni
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com