অন্য ভাষায় :
বৃহস্পতিবার, ০৬:০৮ পূর্বাহ্ন, ২৩ মে ২০২৪, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
মানব সেবায় নিয়োজিত অলাভজনক সেবা প্রদানকারী সংবাদ তথ্য প্রতিষ্ঠান।

কঠোর সমালোচনা সত্ত্বেও প্যারিসে বৈঠকে বসছেন যুবরাজ সালমান ও ম্যাক্রোঁ

সময়ের কণ্ঠধ্বনি ডেস্ক:
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৮ জুলাই, ২০২২
  • ৬৫ বার পঠিত

ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর আমন্ত্রণে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান প্যারিস সফর করছেন। বুধবার সালমান প্যারিস পৌঁছান।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে উভয়ের মধ্যে বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

চার বছর আগে ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার পর যুবরাজ সালমানকে আমন্ত্রণ জানানো যথাযথ নয় বলে যে সমালোচনা চলছে তা উপেক্ষা করেই ম্যাক্রোঁ তাকে আতিথেয়তা দিচ্ছেন।

খাশোগিকে নৃশংসভাবে হত্যার পর আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সমালোচনার তীব্র ঝড় ওঠে। নিজ দেশে একজন সংস্কারক হিসেবে পরিচিতি পেলেও বিশ্ব অঙ্গনে তিনি হত্যাকারী হিসেবেই বিবেচিত হন এবং একঘরে হয়ে পড়েন। কিন্তু চলতি মাসের প্রথম দিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের যুবরাজ সালমানের সাথে সাক্ষাৎ এবং ম্যাক্রোঁর এ আমন্ত্রণের মধ্য দিয়ে সৌদি যুবরাজের আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সরব হয়ে উঠার পথ সুগম হচ্ছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকেরা।

রাশিয়া ইউক্রেনে হামলার পর বিশ্বব্যাপী জ্বালানি সঙ্কট তীব্র হয়ে ওঠে। সৌদি আরব তেল সম্পদে সমৃদ্ধ, বিশ্ব বাজারে অস্ত্রের অন্যতম ক্রেতা এবং ইরানবিরোধী। এ সব কারণে আমেরিকাসহ পাশ্চাত্যের কাছে সৌদি আরবের ব্যাপক গুরুত্ব রয়েছে।

জ্বালানি নিয়ে আলোচনার উদ্দেশ্যেই সালমান ফ্রান্স সফর করছেন। এর আগে তিনি গ্রিস সফর করেন।

যুবরাজ সালমান ভিন্ন মত একেবারেই সহ্য করেন না উল্লেখ করে অ্যামেনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের সেক্রেটারি জেনারেল এগনেস কলামার্ড বলেন, এই সফরের কারণে আমি গভীরভাবে মর্মাহত। কারণ, এটি আমাদের বিশ্বের জন্যে কী বার্তা নিয়ে আসছে। জামাল খাশোগি কিংবা তার মতো লোকদের জন্যেও কী বার্তা বহন করছে?

তুরস্কের ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে ২০১৮ সালে জামাল খাশোগিকে হত্যার পর ক্রাউন প্রিন্স সালমান এই প্রথম ইউরোপ সফর করছেন। এ হত্যাকাণ্ডকে জাতিসঙ্ঘ বিচারবহির্ভূত হত্যা হিসেবে উল্লেখ করে এবং এ জন্যে সৌদি আরবকে দায়ী করে।

যুবরাজ সালমান এ হত্যাকাণ্ডের অনুমোদন দিয়েছে বলে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সমূহও উল্লেখ করে। কিন্তু রিয়াদ এ অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

কলামার্ড আরো বলেন, তেলের উর্ধ্বমুখী মূল্য নিয়ে উদ্বেগের মুখে মূল্যবোধ ধ্বংস করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ইতোমধ্যে ২০২১ সালে ম্যাঁক্রো সৌদি আরব সফর এবং যুবরাজ সালামানের সাথে বৈঠকও করেন। তাও ওই সময়ে সমালোচিত হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2021 SomoyerKonthodhoni
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com